>>>হতাশার আলোতে

আমরা চার বন্ধু ক্লাস ৩ থেকে এক সাথে চলতাম…
আমি আমিরুল ইসলাম, ফয়সাল, জনি ও জয়নাল। ঘটনাটা ফয়সালকে নিয়ে…

২০০৮ সালের ফেব্রুয়ারি মাস। ফয়সালের খালাতো বোন কলিকে নিয়ে তার মা ফয়সালদের বাসায় আসে।
কলি ফয়সালদের বাসায় থেকে পড়াশুনা করে। ফয়সাল কলিকে ভালবেসে ফেলে কিন্তু বলে না, কলি ও তাকে ভালবেসে ফেলে সেও বলে না। একদিন ফয়সালের বাবা-মা বাড়িতে যায়। ফয়সাল ঠিক করে আজ সে বলবে, বলেও ফেলে। কলি রাজি হয়।

ফয়সাল তার মাকে জানায় সে কলিকে ভালবাসে। ফয়সালের মা মেনে নেয়।

৩.০৯.২০০৯ এ কলির মা কলিকে নিয়ে যেতে আসে। কলি অনেক কান্নাকাটি করে। সে পর্যন্ত কলিকে ফিরে যেতে হয়। ফয়সাল আমাদের কাছে বলে এবং অনেক কান্নাকাটি করে। এরপর তারা ফোনে কথা শুরু করে।

৮.১২.২০০৯ তারিখে কলির মা কলির বিয়ে ঠিক করে…
ফয়সালের মা প্রস্তাব পাঠায়। কিন্তু কলির মা তা ফিরিয়ে দেয়।
এই কথা শুনে ফয়সাল ১৫ টা ঘুমের ট্যাবলেট খায়… আর ঘরের দরজা বন্ধ করে দেয়।
আমরা গিয়ে দরজা ভেঙে ফয়সালকে বের করি, ওকে নারায়ণগঞ্জ মেডিকেলে নিয়ে যাই…

০১.০১.২০১০ এ কলির বিয়ে হয়ে যায়।
আর ফয়সাল গাঁজা, ফেন্সিডিল খাওয়া শুরু করে…
আমাদের কাছ থেকে ও দূরে সরে যায়…
আজো আমার এই বন্ধুটি এমনটাই রয়ে গেছে…